Ads Top


যশোরের ৫০০ নারীকে প্রযুক্তিতে কর্মসংস্থানে প্রশিক্ষন প্রকল্প নিয়েছে আইসিটি মন্ত্রণালয়

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্কঃ নারী উদ্যোক্তাদের আইসিটি তথ্য জ্ঞানে দিক্ষিত করতে এবং তথ্য ও প্রযুক্তি (আইসিটি) খাতে শিক্ষিত নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।  সারা বাংলাদেশে ২১টি জেলায় তিন ক্যাটাগরিতে মোট সাড়ে ১০ হাজার নারীকে আইসিটি ইকো-সিস্টেমে অংশগ্রহণ ও সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের ‘প্রযুক্তি সহায়তায় নারীর ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের অধীনে এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

 এরই ধারাবাহিকতায় যশোর জেলার ৫০০ জন নারী পাবেন এই প্রশিক্ষণের সুযোগ। ইতোমধ্যে যশোর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তোড়জোর শুরু হয়েছে ও প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে ।  যশোর জেলা মিডিয়া রিসার্চ সেল এর আহ্বায়ক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) দেবপ্রসাদ পাল এসব তথ্য জানান। তিনি আরও জানান, ‘উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পাস নারীরা এই প্রশিক্ষণের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনকারী নারীকে যশোর জেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৪০ এর মধ্যে। প্রশিক্ষণ নিতে আগ্রহীদেরকে আগামী ২৯ জুলাই বিকেল ৪টার মধ্যে আবেদন ডিসি বরাবর আবেদন করতে হবে। তিন ক্যাটাগরির প্রথম প্যাকেজে ফ্রিলান্সার টু ইন্টারপ্রিনার, দ্বিতীয়টিকে আইটি সার্ভিস প্রোভাইডার এবং শেষটিতে উইমেন কলসেন্টার এজেন্ট বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। 

দেবপ্রসাদ পাল আরও জানান, ‘আগ্রহী প্রার্থীদের করা আবেদন যাচাই বাছাই শেষে যশোরের ৫শ’ নারীকে লেভেল-১ এর জন্য মনোনীত করা হবে। এই লেভেলে প্রশিক্ষণার্থী নারীদের তিন মাসব্যাপী ফ্রিলান্সার টু ইন্টারপ্রিনারের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। প্রথম মাসে কাগজে-কলমে প্রশিক্ষণ শেষে পরবর্তী দুইমাস হাতে কলমে প্রশিক্ষণ (ইন্টার্নি) দেয়া হবে। ইন্টার্নির সময় প্রশিক্ষণার্থীদেরকে প্রজেক্ট থেকে মাসিক ভাতা হিসাবে ৩ হাজার টাকা করে পাবেন।
লেভেল-১ এ যারা সাফল্যের সাথে উত্তীর্ণ হবেন তারাই লেভেল-২ (আইটি সার্ভিস প্রভাইডার) এর জন্য মনোনীত হবেন। এই লেভেলেও লেভেল-১ এর মতো ১ মাস কাগজে কলমে ও ২ মাস হাতে কলমে প্রশিক্ষণ (ইন্টার্নি) দেয়া হবে। এই লেভেলে ইন্টার্নি চলাকালীন প্রশিক্ষণার্থী নারীদেরকে মাসিক ৪ হাজার টাকা করে ভাতা দেয়া হবে।
লেভেল-২ সাফল্যের সাথে উত্তীর্ণ হলেই সর্বশেষে লেভেলের জন্য মনোনীত হবেন প্রশিক্ষণার্থীরা। এই লেভেলে ২ সপ্তাহব্যাপী উন্নত প্রশিক্ষণ চলবে। লেভেল-৩ সফলভাবে উত্তীর্ণ নারীদেরকে ল্যাপটপ ক্রয় বাবদ ২০ হাজার টাকার অনুদান পাবেন।

এই প্রশিক্ষণ শেষে যশোরের নারীরা আইসিটিতে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে বলে মনে করছেন যশোরের সুধি সমাজ। যশোরের নারীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে স্বাবলম্বী ও উদ্যোক্তা হতে এই প্রশিক্ষন অনেক সহায়ক হবে। 
Powered by Blogger.